চট্টগ্রামকে প্রযুক্তি নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই

digitalsomoy

পোশাক শিল্প ও জুতার পাশাপাশি কোরিয়ান ইপিজেডে ১০০ একর জায়গায় গড়ে তোলা হলো আইটি জোন। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ত্রিপক্ষীয় চুক্তির মাধ্যমে এই জোনটিকে হাইটেক পার্ক হিসেবে ঘোষণা করা হয়। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক  হোসনে আরা বেগম, স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেডের পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিনা এফ জাবিন এবং কোরিয়ান ইপিজেড-এর পক্ষে এর চেয়ারম্যান ও সিইও মি. কিহাক সাং নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন।

চট্টগ্রাম কেইপিজেড গেস্ট হাউস কনভেনশন হলে এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এসময় দক্ষিণ কোরিয়ার বাংলাদেশস্থ রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং কিউন এবং আইসিটি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এনএম জিয়াউল আলম উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে কোরিয়ান ইপিজেড এর আইটি জোনকে বেসরকারি হাই-টেক পার্ক ঘোষণা করে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমে পলক বলেন, কোরিয়ান ইপিজেড-কে বেসরকারি হাই-টেক পার্ক ঘোষণা করায় এখানে বিনিয়োগ ও ২০ হাজারের বেশি কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। আর এর মাধ্যমে আমরা বন্দর নগরী চট্টগ্রামকে প্রযুক্তি নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।

বক্তব্যে কেইপিজেড দেশে ইনোভেশন ইকোসিস্টেম গড়ে তোলার মাধ্যমে বেসরকারি বিনিয়োগের গতি বৃদ্ধি ও ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে এবং সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগগুলোর যুগপৎ প্রয়াশে দেশের আইসিটি ইন্ডাস্ট্রি আরো বিস্তৃত হবে বলেও মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী।

এসময় স্যামসাং কর্তৃপক্ষকে হাইটেক পার্কে ৪১ তলা ভবন তৈরি করে রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে মাইলক ফলক স্থাপনের আহ্বান জানান জুনাইদ আহমেদ পলক।