বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ মহামারির কারণে বলিউডে হাজার কোটি রুপির লোকসানে পড়তে যাচ্ছে। টেলিভিশন অঙ্গনের অবস্থাও নাজুক। ভারতের ছোট পর্দার প্রযোজকরাও বিশাল ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন।
এর মধ্যে বালাজি টেলিফিল্মসের স্বত্বাধিকারী একতা কাপুর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, নিজের প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের টাকা-পয়সা যেন কাটা না পড়ে সেজন্য আগামী এক বছর বেতন নেবেন না তিনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঘোষণাটি দেন ৪৪ বছর বয়সী এই প্রযোজক।
ইনস্টাগ্রাম ও টুইটারে অভিনেতা জিতেন্দ্রর মেয়ে একতা লিখেছেন, ‘করোনা সংকটের নেতিবাচক প্রভাব ব্যাপক, নজিরবিহীন ও বহুমাত্রিক। তাই আমাদের সবাইকে এমন কাজ করতে হবে যাতে চারপাশের ও গোটা দেশের মানুষের সমস্যার সমাধান হয়। বালাজি টেলিফিল্মে কর্মরত বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সার ও কর্মীদের দায়িত্ব নেওয়া আমার প্রথম ও বড় দায়িত্ব। শুটিং বন্ধ থাকায় কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছেন তারা। আগামীতেও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়তে হতে পারে তাদের। তাই আমার এক বছরের বেতন আড়াই কোটি রুপি ছেড়ে দেবো, যাতে আমার সহকর্মীদের সংকট ও লকডাউনে সমস্যায় পড়তে না হয়। সামনে এগোনোর একমাত্র উপায় একসঙ্গে চলা। নিরাপদে থাকুন, ভালো থাকুন।’
একতার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বালাজি টেলিফিল্মস, বালাজি মোশন পিকচার্স ও এএলটি বালাজির সব কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তার কথায়, ‘জীবনে এবারই প্রথম অফিস বন্ধ রাখতে হচ্ছে। বন্যা, সন্ত্রাসী হামলা কিংবা ব্যাংক ছুটির সময়ও আমরা কাজ করেছি। কিন্তু এখন সুরক্ষাই সবার আগে।’
এদিকে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ২১ দিনের জন্য লকডাউনে আছে ভারত। এমন সংকটে সমাজের নিম্ন আয়ের মানুষেরা অসহায় হয়ে পড়েছেন। তাদের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন বিনোদন অঙ্গনের তারকারা। ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা করতে এগিয়ে এসেছেন অনেকে। একতা কাপুরও যোগ দিলেন সেই দলে।

khalednbd
Author: khalednbd

I am Editor of Digital Somoy