লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারিতে চলা গ্যাজেটে চার্জ ফুরিয়ে যাওয়ার সমস্যা সমাধান হতে চলেছে বিজ্ঞানীদের হাত ধরে। এখনকার ব্যাটারিতে লিথিয়াম আয়ন প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়। কিন্তু নতুন প্রযুক্তির ব্যাটারি একবার চার্জে দুই থেকে তিনগুণ বেশি চলবে। সেই সঙ্গে এর উৎপাদন খরচও অনেক কম হবে। আর এই সাফল্য এসেছে তিন ভারতীয় গবেষকের হাত ধরে। যার নেতৃত্বে আছেন বিজ্ঞানী আরুমুগাম মান্থিরাম।

এই সংক্রান্ত গবেষণাপত্রও সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। যাঁর নেতৃত্বে এই গবেষণা চলছে তিনি টেক্সাস মেটিরিয়ালস ইনস্টিটিউটের ডিরেক্টর আরুমুগাম মান্থিরাম। তাঁর সঙ্গে এই গবেষণায় যুক্ত আছেন অস্টিনে টেক্সাস ইউনিভার্সিটির দুই ছাত্র অম্রুত ভার্গভ এবং সঞ্জয় নন্দা। বিজ্ঞানী আরুমুগাম চেন্নাইয়ে পড়াশোনা করেছেন। পরে টেক্সাস ইউনিভার্সিটিতে যোগ দেন।

স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, ল্যাপটপ, ড্রোনের মতো গ্যাজেটে একটি বড় সমস্যা হল দ্রত চার্জ শেষ হয়ে যাওয়া। এখন এই গ্যাজেটে লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়। গবেষক আরুমাগামে নেতৃত্বে তৈরি নতুন ব্যাটারিতে ‘লিথিয়াম-সালফার আয়ন’ প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।

নতুন এই প্রযুক্তিতে যেহেতু সালফার ব্যবহার করা হচ্ছে, তাই ব্যাটারি তৈরিতে খরচ অনেক কমবে। গবেষকরা জানিয়েছেন, লিথিয়াম-সালফার আয়ন ব্যাটারির জীবৎকাল অনেক বাড়বে অর্থাৎ এখনকার লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির থেকে বেশি দিন টিকবে। সেই সঙ্গে একবার চার্জে এখনকার ব্যাটারির থেকে দুই-তিনগুণ বেশি চলবে মোবাইল বা অন্য গ্যাজেট।

সালফার ব্যবহার করার কারণে ব্যাটারির ওজন কিছুটা কম হবে। ফলে সার্বিক ভাবে গ্যাজেটের ওজনও কমবে। এছাড়াও শর্ট সার্কিট হওয়ার মতো সমস্যাও কমবে। নতুন প্রযুক্তির এই লিথিয়াম-সালফার আয়ন ব্যাটারি দ্রুত বাজারে আনা যাবে বলেই মনে করছেন গবেষণার সঙ্গে যুক্ত বিজ্ঞানীরা।

khalednbd
Author: khalednbd

I am Editor of Digital Somoy