করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত বিএনপির ৭৩ নেতাকর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ ছাড়া এখন পর্যন্ত দলের ২৮৪ জন নেতাকর্মী আক্রান্ত হয়েছেন বলেও জানান তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উত্তরার নিজ বাসা থেকে এক ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, সারাদেশে এ পর্যন্ত যেসব বিএনপি নেতারা করোনায় আক্রান্ত এবং আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মধ্যে রাজশাহী বিভাগে মোট আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচজন। চট্টগ্রাম বিভাগে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ জন, মারা হয়েছেন ১৪ জন। কুমিল্লা বিভাগে আক্রান্ত ৫২ জন, মৃত্যু ১৯ জন। ঢাকা বিভাগে আক্রান্ত ১০১ জন, মৃত্যু ৩৬ জন। ময়মনসিংহ বিভাগে আক্রান্ত ১০ জন, মৃত্যু একজন। খুলনা বিভাগে আক্রান্ত ৩০ জন। সিলেট বিভাগে আক্রান্ত ২১ জন, মৃত্যু দুইজন এবং ফরিদপুর বিভাগে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ জন, মারা গেছেন একজন।

সম্প্রতি ত্রাণ বিতরণে বিএনপিকে কোথায়, কে বাধা দিয়েছে- আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তার প্রমাণ চেয়েছেন এবং অভিযোগ প্রমাণিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়াও আশ্বাস দিয়েছেন।

এ বিষয়ে ফখরুল বলেন, আমরা স্পষ্টভাবে বলেছি, সাতক্ষীরায় সংসদ সদস্যের ছেলের নেতৃত্বে হামলা করা হয়েছে। ১৫/২০টি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। অনেককে আহত করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের মহিলা কাউন্সিলর আয়শা আক্তারের ওপর হামলা হয়েছে। রাজশাহীতে ত্রাণ দেয়ার সময় ৬ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। কুষ্টিয়ায় জাহিদুল ইসলাম বিপ্লবকে আটক করা হয়েছে। আমি বলতে চাই সরকার অবৈধ ক্ষমতাকে পাকাপোক্ত করার জন্য সব রকমের কূটকৌশল প্রয়োগ করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

dsadmin
Author: dsadmin