ই-ক্যাবের এফ-কমার্স অ্যালায়েন্স কমিটির যাত্রা শুরু

digitalsomoy

ই-ক্যাব ফেসবুকভিত্তিক উদ্যোক্তাদের নিয়ে ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ই-ক্যাব) অধীনস্থ উপকমিটি হিসেবে এফ-কমার্স অ্যালায়েন্সের কার্যকরি কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

শনিবার (৫ জুন) চেয়ারম্যান সাজ্জাদ বিন আহসান সৌরভ, ভাইস চেয়ারম্যান রিদওয়ানুল বারী জিয়ন ও মুসলিম উদ্দীন বাপ্পিকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৯ সদস্যের এই কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটির অন্যান্য নির্বাহী সদস্যরা হলেন, পার্থ প্রতিম, মোস্তাফিজুর রহমান খান, হুরায়রা শিশির, মেছবাহ উদ্দিন, মাশহারুল হুদা আনান ও হোসনে আরা খান নওরীন।

কমিটি গঠন অনুষ্ঠানে ই-ক্যাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট সাহাব উদ্দিন শিপন, জেনারেল সেক্রেটারি মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল এবং জেনারেল ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম শোভনসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কমিটি গঠন সম্পর্কে ই-ক্যাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট সাহাব উদ্দিন শিপন বলেন, ই-কমার্সের সাথে তাল মিলিয়ে ক্রমশ বড় হচ্ছে এফ-কমার্স তথা সোশ্যাল মিডিয়াভিত্তিক ব্যবসায়িক উদ্যোগ। এই মুহূর্তে তাদের সংখ্যা ও ব্যবসা সম্পর্কে যেমন তথ্য থাকা দরকার, তেমনি প্রয়োজন তাদের জন্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা।

ই-ক্যাবের জেনারেল সেক্রেটারি মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল বলেন, সোশ্যাল মিডিয়া সেক্টরের উদ্যোক্তাদের স্বীকৃতি, নিবন্ধন ও ট্রেড লাইসেন্স এর বিকল্প ব্যবস্থা কিংবা সহজিকরণের মাধ্যমে তাদের মূল ব্যবসায়িক স্রোতে একীভূত করা দরকার। একইভাবে দেশের অর্থনীতিতে এফ-কমার্স উদ্যোক্তাদের অবদানকে স্বীকৃতির মধ্যে আনতে তাদেরকে একটা ছাতার নিচে জড়ো করার প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করছি। সে লক্ষ্যে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ই-ক্যাবের জেনারেল ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম শোভন বলেন, এফ কমার্সের সহজ নিবন্ধন এর একটা প্রস্তাবনা ইতোমধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে বিবেচনাধীন রয়েছে। অ্যালায়েন্সের অধীনে এফ-কমার্স উদ্যোক্তাদের ই-ক্যাবের সাথে যুক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হলো। এফ-কমার্স নিয়ে খুব শীঘ্রই একটি সেমিনার এর আয়োজন করা হবে যা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল এর সাথে যৌথ ব্যবস্থাপনায় অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে। তাতে এ বিষয়ে ভবিষ্যৎ করনীয় সম্পর্কে আলোচনা করা হবে।

ই-ক্যাবের ১৬টি স্ট্যান্ডিং কমিটিসহ মোট ৩০টি উপকমিটি রয়েছে। কমিটিগুলো ই-ক্যাবের অধীনে থেকে স্ব স্ব ক্ষেত্রে কাজ করে থাকে। এফ-কমার্স অ্যালায়েন্স একটি উপকমিটি হলেও এর ব্যাপক ব্যাপ্তির সম্ভাবনা রয়েছে।

ই-ক্যাব বাংলাদেশের ই-কমার্স উদ্যোক্তাদের একমাত্র অনুমোদিত সংগঠন যা বিগত ২০১৪ সাল থেকে ই-কমার্সের উন্নয়নে কাজ করছে। সংগঠনটি ট্রেড  অ্যাসোসিয়েশন হিসেবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধিভুক্ত এবং এফবিসিসিআই এর সাথে সম্পৃক্ত। বিগত বছর করোনাকালীন দেশের অর্থনীতিতে বিশেষ অবদানের জন্য ই-ক্যাব সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার অর্জন করে।